ঢাকা ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

শনিবার বাফুফের সভায় উঠছে ‘নির্বাচন’

শনিবার বাফুফের সভায় উঠছে ‘নির্বাচন’

দীর্ঘদিন ধরেই দেশের ফুটবলে চলছে খরা। এগোচ্ছে না ছেলেদের ফুটবল। মেয়েরা সাফ শিরোপা জিতেও উপেক্ষিত। অলিম্পিক বাছাইয়ে খেলতে তাদের পাঠানো হয় না অজানা কারণে। অথচ নির্বাচনকে সামনে রেখে এই নারী ফুটবলের ক্লাব নিয়ে শুরু হয়ে গেছে ভোট বাণিজ্য। গত শনিবার বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) চারটি ক্লাবকে কাউন্সিলরশিপ দিয়েছে বাফুফে। এবার নির্বাচন নিয়ে নির্বাহী সভার আয়োজন করছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। ফুটবলারদের বেতন ও বোনাস বকেয়া থাকলেও মেয়েদের লিগের চার কাউন্সিলের জন্য ঠিকই প্রায় অর্ধ কোটি টাকা খরচ করেছিল। এবার নির্বাচনের দিনক্ষণ ও ভেন্যু নির্ধারণের জন্য নির্বাহী সভার আয়োজন করছে আগামী শনিবার। সভায় চারটি আলোচ্যসূচি থাকলেও প্রধান আলোচনা নির্বাচনের দিন ও ভেন্যু নির্ধারণ। ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বর্তমান কমিটির মেয়াদ থাকলে বাফুফের কয়েকজনের ইচ্ছে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি অথবা শেষ সপ্তাহের মধ্যে নির্বাচন শেষ করার।

আবার ক’জন ৩ অক্টোবর মেয়াদ শেষের আগে নির্বাচন দিতে আগ্রহী নয়। নির্বাচনের দিন ও ভেন্যু ঠিক করলেও নির্বাচন সংক্রান্ত বাফুফের নির্বাহী কমিটির আরো আনুষ্ঠানিকতা রয়েছে। জেলা, ক্লাব, সংস্থা থেকে কাউন্সিলর নাম চেয়ে চিঠি দেয়া এবং সেই নাম আসলে নির্বাহী সভায় অনুমোদন করতে হবে। এই প্রক্রিয়া করতে কয়েক সপ্তাহ সময় লাগবে বাফুফের। বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির মেয়াদ ৪ বছরের।

২০০৮-১৬ মেয়াদে বাফুফের নির্বাচন এপ্রিল মাসের শেষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০২০ সালের এপ্রিলে করোনা মহামারি ছিল। এজন্য ফিফা বাফুফের তৎকালীন কমিটিকে ৬ মাস অতিরিক্ত মেয়াদ বৃদ্ধি করেছিল। তাই ২০২০ সালের নির্বাচন অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই নির্বাচনে চতুর্থ সহ-সভাপতি পদে মহিউদ্দিন আহমেদ মহী ও তাবিথ আউয়াল সমান ভোট পেয়েছিলেন। তাদের পুনঃনির্বাচন হয়েছিল ৩১ অক্টোবর। বাফুফের নির্বাহী কমিটি ২১ জনের।

সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি, চার সহ-সভাপতি ও ১৫ জন নির্বাহী সদস্য। এই ২১ জন কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে চার বছরের জন্য নির্বাচিত হন। গত বছর মার্চে সাবেক জাতীয় অধিনায়ক আরিফ হোসেন মুন নির্বাহী সদস্য থেকে পদত্যাগ করেন। আগের মেয়াদে আরেক সাবেক অধিনায়ক শেখ আসলামও পদত্যাগ করেছিলেন। সেই পদত্যাগ নির্বাহী সভায় গৃহীত হয়নি। এবার বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন মুনের পদত্যাগ নির্বাহী সভায় না তুলে গৃহীত করে নেন। ১৩ জুলাই বিকাল তিনটার সভায় নির্বাচন ছাড়াও গতানুগতিক দুই এজেন্ডা থাকবে- বিগত সভার কার্যবিবরণী অনুমোদন ও বিবিধ।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত