আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২২-০২-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

প্রেম করতে চান ক্যাটরিনা কাইফ

বিনোদন ডেস্ক
| বিনোদন

ক্যাটরিনা কাইফ অল্পসংখ্যক বলিউড অভিনেত্রীদের একজন, প্রেমে যিনি দুর্ভাগা। ২০০৯ সালে আলাদা হয়ে যাওয়ার আগে চার বছর প্রেম করেছেন সুপারস্টার সালমান খানের সঙ্গে। পরে ফের প্রেমের দেখা পান। রণবীর কাপুরের সঙ্গে তার প্রেম ছিল প্রায় তিন বছর। কিন্তু ফের প্রেমের আকাশে জড়ো হয় মেঘ। ওঠে ঝড়। ভেঙে যায় স্বপ্নিল প্রাসাদ। ২০১৬ সালে রণবীরের সঙ্গে তিক্ত বিচ্ছেদের পর আর কারও সঙ্গেই প্রেম করেননি ক্যাটরিনা। জীবনে উত্থান-পতন আসেই। সালমান খানের সঙ্গে প্রেম ভেঙে গেলেও ক্যাটরিনা আজও তার সঙ্গে আন্তরিক সম্পর্ক বজায় রেখে চলেছেন। প্রায়ই তারা ভালোবাসার বন্ধন ও বন্ধুত্বের গল্প ভাগাভাগি করেন। এমনকি একে অপরকে পরিবার বলেই উল্লেখ করেন। লাখো ভক্ত এখনও তাদের সমীকরণ পছন্দ করেন। আশায় আছেন, একদিন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হবেন তারা। পেছনে ফিরলে দেখা যায়, ২০০৭ সালে সালমানের প্রেমে পড়েন ক্যাটরিনা। একবার নির্মাতা-প্রযোজক করণ জোহর সঞ্চালিত জনপ্রিয় ও বিতর্কিত চ্যাট শো ‘কফি উইথ করণ’-এ অতিথি হয়েছিলেন ক্যাটরিনা। সালমান কখনও বিয়ের প্রসঙ্গ তুললে কী উত্তর দেবেন, এমন প্রশ্ন করেন সঞ্চালক করণ জোহর। ওই মুহূর্তে ভাষা হারিয়ে ফেলেন ক্যাটরিনা। কিছুক্ষণ চুপ থেকে পরে উত্তর দেন, ‘এটা র‌্যাপিড ফায়ার নয়। এটা পুরোটাই আনফেয়ার! এটা সম্পূর্ণ প্রতারণা। এটা নির্ভর করবে তার জিজ্ঞাসার ওপর।’ কিন্তু রণবীরের সঙ্গে সম্পর্কের সময় ক্যাটরিনার ভঙ্গি সম্পূর্ণ আলাদা ছিল। অনেকের বিশ্বাস ছিল, তাকে বিয়ে করবেন তিনি। ক্যাটরিনা-রণবীর একটি অ্যাপার্টমেন্টে থাকতেন। ঘনিষ্ঠ সময় কাটাতেন। কিন্তু সবাইকে হতাশ করে একদিন তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়।

রণবীরের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর নিজের কাজে মনোযোগ দেওয়া শুরু করেন ক্যাটরিনা কাইফ। বেশ কয়েকটি প্রকল্পে যোগ দেন তিনি। গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে সম্পর্কের ব্যাপারে আলাপ এড়িয়ে যান। কিন্তু কিছুদিন আগে একটি চ্যাট শোতে এই অভিনেত্রী তার সিঙ্গেল থাকা নিয়ে মুখ খোলেন। ওই শোতে ক্যাটরিনাকে জিজ্ঞেস করা হয়, কেন তিনি সিঙ্গেল রয়েছেন ও কারও সঙ্গে প্রেম করছেন না। উত্তরে ক্যাটরিনা বলেন, ‘আমি সত্যিই জানি না এবং... আমি জানি না, আর কখনও তা করতে পারব কি না।’ তিনি বলেন, ‘একজনের পক্ষে যেভাবে সিঙ্গেল থাকা সম্ভব,’ সেভাবেই আছেন তিনি।
বিচ্ছেদের পর ক্যাটরিনা একা থাকলেও রণবীর কাপুর ভালোবাসার মানুষ হিসেবে আলিয়া ভাটকে খুঁজে পেয়েছেন। মজার ব্যাপার হলো, ক্যাটরিনা ও আলিয়ার মধ্যে রয়েছে গভীর বন্ধুত্ব আর এ বন্ধন ক্যাটরিনার সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে প্রেম করার আগে থেকে। রণবীরের সঙ্গে প্রেমের পর আলিয়ার সঙ্গে ক্যাটরিনার সম্পর্কের অবনতি নিয়ে বেশ কিছু প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল। তবে ক্যাটরিনা পরিষ্কার করেই জানালেন, তার প্রেমজীবনে আলিয়া প্রাসঙ্গিক নয়। ‘তার (আলিয়া) প্রেম আমাদের সম্পর্কের সমীকরণে প্রাসঙ্গিক নয়, কেন আমাদের সমীকরণ বদলাবে,’ বলেন ক্যাটরিনা। কিন্তু এখনও যে প্রশ্নটি বি-টাউনের অনুরাগীদের মুখে মুখে, সালমান ও রণবীরের পর কবে প্রেমের দেখা পাবেন ক্যাটরিনা কাইফ? অবশ্য সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ক্যাটরিনাকে জিজ্ঞেস করা হয়, চলতি বছরে কী চাওয়া তার। উত্তরে ৩৫ বছরের এ আবেদনময়ী বলেন, ‘একজন বয়ফ্রেন্ড। আমি আর সিঙ্গেল থাকতে চাই না।’ জীবনে ‘মিস্টার রাইট’ আসবেন, এ প্রত্যাশা তার। ভক্তদেরও একই প্রত্যাশা। সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস, ইন্ডিয়া টুডে