ঢাকা ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

‘টাইটানিক’ প্রযোজক জন ল্যান্ডার আর নেই

‘টাইটানিক’ প্রযোজক জন ল্যান্ডার আর নেই

হলিউডের ইতিহাসের অন্যতম সিনেমা ‘টাইটানিক’-এর প্রযোজক জন ল্যান্ডার আর নেই। ৬৩ বছর বয়সে মারা গেছেন অস্কারজয়ী এই প্রযোজক। গত শনিবার তার পরিবারের পক্ষ থেকে মৃত্যুর বিষয়টি জানানো হয়। যদিও মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে এখনো জানানো হয়নি। কিংবদন্তি এই প্রযোজক আশির দশকে প্রোডাকশন ম্যানেজার হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। এরপর তিনি ধীরে ধীরে নিজের পদে উন্নীত হন। ‘হানি আই শ্রাঙ্ক দ্য কিডস’ এবং ‘ডিক ট্রেসি’র সহ-প্রযোজক হিসাবে কাজ করেন। তিনি ১৯১২ সালের ভয়াবহ সামুদ্রিক বিপর্যয় নিয়ে প্রখ্যাত পরিচালক জেমস ক্যামেরনের ব্যয়বহুল ফিল্ম টাইটানিকের প্রযোজকের ভূমিকা গ্রহণ করেন।

‘টাইটানিক’ প্রথম চলচ্চিত্র যেটি বিশ্বব্যাপী বক্স-অফিসে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় ছাপিয়ে যায় এবং সেরা ছবি-সহ ১১টি অস্কার জিতে নেয়। এছাড়া তিনি ক্যামেরুনের সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘অ্যাভাটার’ এর দুটি চলচ্চিত্র তৈরি করেছিলেন। ১৯৯৭-এর ‘টাইটানিক’-এর জন্য সেরা ছবির অস্কার জেতেন জন ল্যান্ডার। ল্যান্ডা ও ক্যামেরনের পার্টনারশিপ 'অ্যাভাটার' এবং এর সিক্যুয়েল 'অ্যাভাটার’ : ‘দ্য ওয়ে অফ ওয়াটার’ সহ সিনেমার ইতিহাসের অন্যতম বড় ব্লকবাস্টার উপহার দিয়েছেন দর্শকদের। দীর্ঘদিনের বন্ধুকে হারিয়ে ক্যামেরন একটি বিবৃতিতে বলেন, একজন প্রিয় বন্ধু এবং আমার ৩১ বছরের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ সহযোগী। আমার জীবনের একটি অংশ ছিঁড়ে গেল। তিনি আরো বলেন, তার অদ্ভুত হাস্যরস, ব্যক্তিগত আকর্ষণ, চেতনার মহান উদারতা আমাদের মহাবিশ্বের কেন্দ্রে প্রায় দুই দশক ধরে থাকবে। তার উত্তরাধিকার শুধুমাত্র তিনি যে চলচ্চিত্রগুলো তৈরি করেছিলেন তা নয়, তিনি যে ব্যক্তিগত উদাহরণ স্থাপন করেছেন, সেটাই তার উত্তরাধিকার। আর তা হলো, অদম্য, যত্নশীল, অন্তর্ভুক্তিমূলক, অক্লান্ত, অন্তর্দৃষ্টিপূর্ণ এবং সম্পূর্ণ অনন্য একটি ব্যক্তিসত্ত্বা।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত